দেশের মধ্যে একমাত্র ধর্মনিরপেক্ষ লড়াকু নেত্রী হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য ঋতব্রত

আইডিয়া টুডে নিউজ, কলকাতা ,৩ মেঃমাস খানেক আগে দলীয় সাংসদ ঋতব্রতকে বহিষ্কার করেছে সিপিএম। দলবিরোধী কাজের জন্যেই এই চরম সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছিল দলের পক্ষ থেকে।যাবতীয় বাধা কাটিয়ে সরাসরি জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করার কথা। শুধু তিনি নিজে নয়, সকল বঙ্গবাসীকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াইয়ের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন ঋতব্রত বাবু।

বুধবার বিকেলে কলকাতা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “সমগ্র দেশে মাথাচাড়া দিচ্ছে ফ্যাসিবাদ এবং মৌলবাদ। একই সঙ্গে বৃদ্ধি পেয়েছে সাম্প্রদায়িকতা। এই অবস্থায় দেশের মধ্যে একমাত্র ধর্মনিরপেক্ষ লড়াকু নেত্রী হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর লড়াইয়ে আমাদের সকলের পাশে থাকা উচিত।”

আগামী লোকসভা নির্বাচনে সিপিএম-এর অবস্থা খুব খারাপ হবে বলে দাবি করেছেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, “২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে সিপিএম সুই অঙ্কের আসন পাবে না।”

বাম দল থেকে বহিষ্কৃত হলে নিজেকে এখনও বামপন্থী বলেই দাবি করেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও বামপন্থী বলেই মনে করেন তিনি। ভারতীয় সমাজের সার্বিক উন্নতি এবং সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাস্ত করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীপদের জন্য একমাত্র যোগ্য ব্যক্তি বলে দাবি করেছেন সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *