জেনে নিন রূপশ্রী প্রকল্পের বিস্তারিত এবং কি করে আবেদন করবেন

আইডিয়া টুডে নিউজঃ গত কয়েক বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গ সরকার, কন্যাশ্রী , যুবাশ্রী , সবুজ সাথী এবং অন্যান্য স্কিম চালু করেছে। আগামী কাল রাজ্য সরকার ‘রূপশ্রী ‘ নামের একটি নতুন প্রকল্প চালু করেছে। মেয়েদের জন্য এই প্রকল্প, 18 বছরেরও বেশি বয়সী যারা এই Rupashree Prakalpa অধীনে, মেয়েদের এক সময় ২৫ হাজার টাকা তার বিবাহের জন্য পাবেন।

পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র, সংসদ বিষয়ক রাষ্ট্রীয় বাজেট প্রকাশের সময় এই নতুন রূপশ্রী প্রকল্পের সম্পর্কে ঘোষণা দিয়েছিলেন। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সরকার এই সমস্ত প্রকল্পগুলি চালু করে। যাদের বার্ষিক পরিবারের আয় ১.৫ লক্ষ টাকার কম, ১৮ বছর বয়সের পর বিয়ের সময় এই ‘ রূপশ্রী প্রকল্প ‘ পেতে পারেন । নীচে, আমরা যোগ্যতা মাপদণ্ডটি বর্ণনা করেছি, এই স্কিমের আবেদন প্রক্রিয়া কিভাবে আবেদন করবেন ।

রূপশ্রী প্রকল্পের জন্য যোগ্যতা মাপকাঠি

রূপশ্রী প্রকল্পের আবেদন করতে, আবেদনকারীকে নিম্নলিখিত যোগ্যতা নির্দেশিকা পূরণ করতে হবে।

  • রূপশ্রী প্রকল্পের জন্য আবেদন করার জন্য মেয়েটির বয়স ১৮ বছরেরও বেশি হতে হবে।
  • বার্ষিক পারিবারিক আয় ১.৫ লক্ষ টাকার কম
  • আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • রূপশ্রী প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা দরকার নেই।
রূপশ্রী প্রকল্পের জন্য আবেদন প্রক্রিয়া

রূপশ্রী প্রকল্পের আবেদন ফর্ম ইতিমধ্যে থেকে পাওয়া। Rupashree Prakalpa জন্য আবেদনপত্র পৌরসভা অফিস বা BDO অফিস বা SDO অফিস থেকে উপলব্ধ হবে।

Rupashree Pralakpa আবেদন খুব শীঘ্রই অনলাইন পাওয়া যাবে। আবেদনকারীকে তার বিয়ের আগে আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে এবং এটি বিডিও বা পৌরসভা অফিসে জমা দিতে হবে। এর পরিমাণ  হাজার টাকা তার বিয়ের আগে আবেদনকারীর ব্যাংক একাউন্টে জমা হবে।

Rupashree Prakalpa জন্য ডকুমেন্টস প্রয়োজন

রূপসী Prakalpa অফলাইন আবেদন জন্য নিম্নলিখিত নথি প্রয়োজন হয়। এই ডকুমেন্টগুলি রূপশ্রী প্রকল্পের আবেদন ফরমের সাথে যুক্ত হবে।

গুরুত্বপূর্ণ , Rupashree Prakalpa আবেদনপত্র ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

  1. জন্ম সার্টিফিকেট (মাধ্যমিকের admit/ জন্ম শংসাপত্র)।

2. বিয়ের সম্পূর্ণ বিবরণ তথ্য। (নাম, ঠিকানা, আইডি প্রমাণ)

  1. বিবাহের আমন্ত্রণ কার্ড বা অন্য কোন প্রুফ।

  2. তার বিবাহ সম্পর্কে ব্রাইড এর ঘোষণা কপি।

  3. আইডি প্রুফ (ভোটার কার্ড, ভিত্তি কার্ড)

6.  ব্যাংক হিসাব বিবরণ।

রূপশি প্রকল্পা নির্বাচন প্রক্রিয়া

বিডিও, এসডিও বা পৌরসভা কার্যালয় থেকে রূপশ্রী প্রকল্পের আবেদনপত্র সংগ্রহ করুন এবং এটি সঠিকভাবে পূরণ করুন। প্রয়োজনীয় নথির সাথে সংযুক্ত করুন এবং নিম্নলিখিত কার্যালয়টিতে জমা দিন। কর্তৃপক্ষ সমস্ত তথ্য যাচাই করবে এবং পরে তারা আবেদনটি পাস করবে।

নির্বাচিত / পাস করা আবেদনকারীরা তাদের বিয়ের এক সপ্তাহ আগে রূপশ্রী প্রকল্পের টাকা সরাসরি তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাবেন।

রূপসী Prakalpa এর উপকারিতা ও লক্ষ্য

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের রূপশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি প্রদান করা হবে।

  • মেয়েরা পাবেন ২৫ হাজার টাকা তার বিয়ের সময়, যদি তিনি সমস্ত যোগ্যতা প্রয়োজনীয়তা পূরণ করেন এবং এই স্কিমের জন্য আবেদন করেন।
  • এই রূপশ্রী প্রকল্পের দ্বারা, শিশু বিয়ে হ্রাস পাবে।
  • পশ্চিমবঙ্গ সরকার আর্থিকভাবে তাদের মেয়েদের বিয়েতে এই এক-বারের পরিমাণ অর্থ প্রদান করে মেয়েদের বাবা-মা দের সমর্থন করবে।
  • মেয়েদের শিক্ষার হার এই সমস্ত প্রকল্পগুলি ( কন্যাশ্রী , রূপশি) দ্বারা বৃদ্ধি পাবে ।

সরকার এই প্রকলপের অধীনে 1500 কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে । এবং নতুন রূপশ্রী প্রকল্পের ব্যাপারে আমরা সবাই আশাবাদী। রূপশ্রী প্রকল্পেরএটি সম্পূর্ণ তথ্য। নীচের মন্তব্য বাক্সে আপনার কোন ক্যোয়ারী পোস্ট থাকলে। সম্পূর্ণ তথ্য জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখুন ।

 

8 Comments on “জেনে নিন রূপশ্রী প্রকল্পের বিস্তারিত এবং কি করে আবেদন করবেন”

  1. আমার মেয়ের বয়েস ২৪+ । তার বিয়ে ঠিক হতেই সে রুপস্রী প্রকল্পের ফর্ম জমা দিয়েছিল। সমস্ত সঠিক নথি পত্র সহ। বিবাহ ছিল ১৮ই জুন, কিন্তু আজও তার একাউন্টে টাকা এল না। ব্লকে যোগাযোগ করলে বলছে, “আমরা তো ফর্ম চেক ও আপ্রুভ করে পাঠিয়ে দিয়েছি কলকাতায় , বাকি তো উপরওয়ালারাই জানেন””…… সমস্যা হল, ভোগান্তি তো মেয়ের না, আমাদের মত গরীব বাপদের। যদি টাকা নাই দেবে, তাহলে আশা দেওয়ার কি দরকার? উল্টে ব্লকে দৌড়াদৌড়ি তে ২/৩ শো টাকা নষ্ট … যাই হোক , মেয়েটার ‘রুপশ্রী প্রকল্পের’ টাকাটা না পাওয়ার কারণটা কিভাবে জানা যাবে? এই বিষয়ে কোথায় যোগাযোগ করতে হবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *