পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ১১ হাজার ৫০০ কোটি টাকা তছরূপের উপযুক্ত তদন্ত দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ১১ হাজার ৫০০ কোটি টাকা তছরূপের উপযুক্ত তদন্ত দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ জঙ্গলমহল সফরের প্রথম দিনে বেলপাহাড়ির স্কুলমাঠে একটি জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি নাম না করে এ বিষয়ে বিজেপিকে কটাক্ষ করেন। বলেন, জনগণের টাকা হজম করে নেওয়া চলবে না। এদিন তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, পিএনবি কেলেঙ্কারির তদন্ত করতে হবে। না হলে ছেড়ে দেব না। ১১ হাজার ৫০০ কোটি টাকার কেলেঙ্কারি। কে ঋণ দিল, কে খেল টাকা? এর তদন্ত করতে হবে। তিনি বলেন, ব্যাঙ্কে আপনার টাকা নিরাপদ নয়। তাঁর দাবি, এফআরডিআই বিল প্রত্যাহার করতে হবে কেন্দ্রকে। বিল ফেরাতে পরপর দু’বার চিঠি দিয়েছি। দ্বিতীয় চিঠিতে আরও কড়া করে বিল ফেরানোর দাবি করেছি।
পাশাপাশি, আগের বাম সরকারকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, এতদিন কেউই তো জঙ্গলমহলের দিকে তাকাত না। এই সরকার আসার পরই তো জঙ্গলমহলে পরিবর্তন এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে সবচেয়ে বেশি মানুষ যাতে ২ টাকা কেজি চাল পান তা যেমন দেখবেন, তেমনই জঙ্গলমহলে ৭০ লক্ষ সাইকেল বিলির টার্গেটও রয়েছে সরকারের। এদিন নতুন করে জঙ্গলমহলকে গড়ে তোলার আহ্বান করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
সভামঞ্চ থেকেই তিনি এদিন জঙ্গলমহলের ফুটবলারদের চাকরীর প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি ঘোষণা করেন, জঙ্গলমহলের ফুটবলারদের জন্য এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক তৈরি হয়েছে। অন্যদিকে সকলেই যাতে মাতৃভাষায় পড়াশোনা করার সুযোগ পায় তাই কুরুখের পর কুরমানি ভাষাকেও স্বীকৃতি দেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। বলেন, সরকার চেষ্টা করছে খুব শীঘ্রই যাতে এই ভাষায় বই তৈরি করা যায়। জনসভার মঞ্চ থেকে এদিন জঙ্গলমহলের বাসিন্দাদের তিনি সরকারকে ভুল না বোঝারও আর্জি জানান। তিনি বলেন, ২ টাকা কেজি দরে চাল যদি না পান তবে আমি কাউকে ছেড়ে কথা বলব না। মিল মালিকদেরও তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন সরকারকে ঠকাবেন না। এদিন তিনি আরও বলেন এখানে ৩টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল গড়ে তোলা হয়েছে, গড়া হয়েছে কিষান মাণ্ডিও। এবার ৩ টি আই টি আই ও বিশ্ববিদ্যালয়ও গড়া হবে। জঙ্গলমহল দিয়ে সন্ধ্যেবেলার বাস পরিষেবা পুনরায় চালু করার বিষয়টিও ভাবনাচিন্তার স্তরে রয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, সন্ধেবেলায় বন্ধ হয়ে যাওয়া বাস পরিষেবা চালু করতে আলোচনা চলছে। জঙ্গলমহলে শান্তি শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্য এদিন পুলিসকেও অভিনন্দন জানান মুখ্যমন্ত্রী। এতদিন বঞ্চিতই ছিল জঙ্গলমহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *